banglanewspaper

বাংলাদেশের বোলারদের একেবারে স্বাচ্ছন্দ্যেই খেললেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। স্বাগতিক দলের দুইজন ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরিতে চাপে পড়ল টাইগাররা। শান মাসুদ ১০০ রান করে আউট হয়ে গেলেও দিন শেষে ব্যক্তিগত ১৪৩ রানে অপরাজিত আছেন বাবর আজম।

৬০ রান করে অপরাজিত আছেন আসাদ শফিক। দ্বিতীয় দিন শেষে পাকিস্তানের লিড দাঁড়িয়েছে ১০৯ রানের।

শনিবার রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের দ্বিতীয় দিন নিজেদের প্রথম ইনিংসের ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ৩৪২ রান সংগ্রহ করে দিনের খেলা শেষ করেছে পাকিস্তান। শুক্রবার ম্যাচের প্রথম দিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ২৩৩ রানে অলআউট হয়েছিল বাংলাদেশ।

শুক্রবার বাংলাদেশের ইনিংস শেষ ওয়ার পরই আলোক স্বল্পতার কারণে দিনের খেলা শেষ বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন আম্পায়াররা। শনিবার সকালে ব্যাট করতে নামে পাকিস্তান। দিনের প্রথম সেশনে ২ উইকেটে ৯৫ রান করে তারা। দ্বিতীয় সেশন শেষে তাদের দলীয় স্কোর ৩ উইকেটে ২০৬ রান। দিনের শেষ সেশনে তারা কোনো উইকেট হারায়নি।

পাকিস্তানের ইনিংসের শুরুতেই আঘাত হানেন টাইগার পেসার আবু জায়েদ রাহি। ফেরান স্বাগতিক ওপেনার আবিদ আলীকে। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে নিজের দ্বিতীয় বলেই সফল হন আবু জায়েদ। উইকেটরক্ষক লিটন দাসের ক্যাচে শূন্য রানে আবিদকে ফেরানে এই ডানহাতি।

শুরুতে উইকেট হারানো পাকিস্তান দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে প্রতিরোধ গড়ে তোলে। তবে শান মাসুদ ও আজহার আলীর ৯১ রানের জুটি ভাঙেন সেই জায়েদ। এবার পাকিস্তান অধিনায়ক আজহার আলীকে ইনিংসের ২৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ব্যক্তিগত ৩৪ রানে স্লিপে থাকা নামজুল হোসেন শান্তর ক্যাচে মাঠ ছাড়া করান তিনি।

দ্বিতীয় সেশনে পাকিস্তানের দলীয় রান যখন ২০৫ তখন শান মাসুদকে বোল্ড করেন স্পিনার তাইজুল ইসলাম। শান মাসুদ আউট হওয়ার পর বাবর আজম ও আসাদ শফিক ১৩৭ রানের জুটি গড়ে অপরাজিত থাকেন।

রাওয়ালপিন্ডিতে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ শুরু হয়েছে শুক্রবার। প্রথম দিনটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। এদিন টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২৩৩ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা।

দলের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিথুন। একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে পান ফিফটির দেখা। মিথুন ১৪০ বলে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেন। এছাড়া নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাট থেকে আসে ৪৪ রান। পাকিস্তানি বোলারদের মধ্যে ৪ উইকেট নেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। দুটি করে উইকেট ভাগ করেন নেন মোহাম্মদ আব্বাস ও হারিস সোহেল। এক উইকেট পান নাসিম শাহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

দ্বিতীয় দিন শেষে ১০৯ রানের লিডে পাকিস্তান।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ২৩৩ (৮২.৫ ওভার)

(তামিম ৩, সাইফ ০, শান্ত ৪৪, মুমিনুল ৩০, মাহমুদউল্লাহ ২৫, মিথুন ৬৩, লিটন ৩৩, তাইজুল ২৪, রুবেল ১, রাহি ০, ইবাদত ০*; শাহীন আফ্রিদি ৪/৫৩, আব্বাস ২/১৯, নাসিম ১/৬১, ইয়াসির ০/৮৩, হারিস ২/১১)।

পাকিস্তান প্রথম ইনিংস: ৩৪২/৩* (৮৭.৫ ওভার)

(শান মাসুদ ১০০, আবিদ আলী ০, আজহার আলী ৩৪, বাবর আজম ১৪৩*, আসাদ শফিক ৬০*; ইবাদত ০/৭৮, আবু জায়েদ ২/৬৬, রুবেল হোসেন ০/৭৭, তাইজুল ১/১১১, মাহমুদউল্লাহ ০/৬)।

ট্যাগ: bdnewshour24 জোড়া সেঞ্চুরি বাংলাদেশ