banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুুরে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে কথা কাটাকাটির জেরে পরীক্ষার্থী বহনকারী একটি গাড়ীতে হামলার ঘটনা  ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন ৫ পরীক্ষার্থী।

রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি)  শ্রীপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রবিবার বিজ্ঞান শাখার উচ্চতর গণিত ও ব্যবসা শিক্ষা শাখার সাধারণ বিজ্ঞান বিষয়ের পরীক্ষা ছিল। যথা সময়ে পরীক্ষা শেষে কেন্দ্রের বাইরে গাড়ী রাখার স্থানে দাঁড়িয়ে থাকা বাসটিতে ছাত্র-ছাত্রী উঠার মুহূর্তে এমন হামলার ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় মাধখলা ইংলিশ এডুকেশন স্কুলের শিক্ষার্থী সাদেক,সোহাগ, তামান্না, তানজিনা ও সুমাইয়া আহত হন। 

আহত পরীক্ষার্থী সোহাগ ও সাদেক জানান, গত ১১ ফেব্রুয়ারি গণিত বিষয়ে পরীক্ষা চলাকালে ৯নং কক্ষে শ্রীপুরের মোহাম্মদ আলী একাডেমির ছাত্রদের একজন মোবাইলে ফোনে কথা বলে পরীক্ষায় নকল করছিল। " তোমাদের জন্য আমাদের কোন সমস্যা যাতে না হয়"- এমন কথা বলতেই তারা রাগান্বিত হয়ে আমাদের উপর চড়াও হয়। পরে ওইদিনের পরীক্ষা শেষে রুমের সামনেই আমাদের জামা ধরে টানাটানি করে তারা। এসময় শিক্ষকরা আমাদের মিলমিশ করে দেন। আজকে এ নিয়ে আমাদের উপর হামলা চালায় তারা। তবে, হামলাকারীদের কাউকে চিনতে পারেননি বলেও জানানো হয় । 

মাধখলা ইংলিশ এডুকেশন স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক ফিরুজুর রহমান জানান, হামলার খবর পেয়ে আহতদের পাশে হাসপাতালে রয়েছি। স্কুলের পরিচালকের সঙ্গে পরামর্শ করে পরবর্তী আইনী প্রক্রিয়া গ্রহন করা হবে। 

থানার এক এসআই ফোন করে মারামারির ঘটনা সম্পর্কে অবগত করেছে জানিয়ে মোহাম্মদ আলী একাডেমির প্রধান শিক্ষক রেজানুর রহমান জানান, পরীক্ষা হলে মোবাইল ফোন নেয়া সম্পর্কে আজই আমি শুনেছি।

গোসিংগা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওয়াজেদ আলী জানান, কেন্দ্র সচিবের ফোন পেয়ে আহতদের দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলাম। আহতরা এখন সুস্থ রয়েছেন।

এ বিষয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কেন্দ্র সচিব পরিমল চন্দ্র রায় জানান, আজকে পরীক্ষা কেন্দ্রের ভিতরে এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। বাইরে কি হয়েছে সে বিষয়ে আমরা অবগত নই। এছাড়াও  আগের কোন ঘটনা সম্পর্কে দায়িত্বে থাকা কেন্দ্র সচিব বিস্তারিত বলতে পারবেন বলেও জানান তিনি । 

শ্রীপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব মনিরুল হাছান মুঠোফোনে জানান, আমি অসুস্থ থাকায় হাসপাতালে রয়েছি। বিষয়টি খোঁজ নিয়ে পরে বিস্তারিত জানাতে পারবো। তবে, পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল নেয়ার কোন সুযোগ নেই। 

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এস.আই) সোহেল রানা জানান, মাধখলা ইংলিশ এডুকেশন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের বহনকারী বাসটি কেন্দ্র সংলগ্ন স্থানে রাখা ছিল। পরীক্ষা শেষে পরীক্ষার্থীরা বাসে উঠার সময় অজ্ঞাত কয়েকজন বাসে ঢিল ছুড়ে হামলা চালায়। এতে কয়েকজন পরীক্ষার্থী আহত হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।  

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, হামলার ঘটনায় আহতদের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে।  বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 

মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, পরীক্ষার্থীর উপর হামলার কোন অভিযোগ এখনো আসেনি। বিষয়টি খোঁজ নেয়া হচ্ছে। পরে জানাতে পারবো।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফীন জানান, আমি জেলায় মিটিংয়ে ছিলাম।  বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 
 

ট্যাগ: bdnewshour24 শ্রীপুর