banglanewspaper

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরোধী এবং সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশসহ সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ১০০ জন। দিল্লির উত্তরপূর্বাঞ্চলের জাফরাবাদ থেকে মৌজপুরের মধ্যে সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর এনডিটিভি।

এর আগে, সিএএ এর বিরুদ্ধে ভিম আর্মির ডাকে দেশব্যাপী অবরোধের অংশ হিসেবে দিল্লির জাফরাবাদে ১৫০০ নারী রাস্তায় অবস্থান নিয়ে অবরোধ করে রেখেছিলেন। তারা টানা দুইদিন এই কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার পর বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে ঘোষণা দেন, জাফরাবাদের ওই অবরোধ সমাবেশের বিপরীতে মৌজপুরে তাঁরা একটি সমাবেশ করবে। সিএএ সমর্থকদের ওই সমাবেশে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

পরে, কপিল মিশ্র আরেকটি ভিডিও টুইটারে প্রকাশ করেন। যেখানে দেখা যায়, দিল্লি পুলিশের ডেপুটি কমিশনার বেদ প্রকাশকে সঙ্গে নিয়ে মৌজপুর চকে অবস্থান নিয়েছেন সিএএ সমর্থকরা। পরে জাফরাবাদ থেকে সিএএ বিরোধীরা মৌজপুর চক অভিমুখে যাত্রা করে। মাঝপথে সিএএ বিরোধীদের দমাতে চেষ্টা করে পুলিশ। প্রকাশিত ভিডিও থেকে দেখা যায় লাল শার্ট পরা এক যুবক পুলিশের সঙ্গে বাকযুদ্ধের এক পর্যায়ে নিজের পিস্তল থেকে ফাঁকা গুলি ছোড়েন।

পুলিশের বাধা অতিক্রম করে দুই পক্ষ মুখোমুখি হয়। দু পক্ষের মধ্যে পাথর ছোড়াছুড়ির ঘটনা ঘটে, এমনকি জাফরাবাদ থেকে মৌজপুর চক অভিমুখে যাওয়া মিছিলকে লক্ষ্য করে বিভিন্ন ভবনের ছাদ থেকে পাথর নিক্ষেপ করা হয়েছে। এছাড়াও কয়েকজনকে পিস্তল থেকে গুলি ছুড়তে দেখা যায়। এই সংঘর্ষের মধ্যেই পুলিশসহ সাত জনের মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও ১০০ জন।

এদিকে, ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ্‌ মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় ভোররাতে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেছেন।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক টুইটার বার্তায় জানিয়েছেন, দিল্লির কয়েকটি অঞ্চলে সংঘর্ষের ব্যাপারে তিনি উদ্বিগ্ন। স্থানীয় এমএলএদের সঙ্গে কথা বলে তিনি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 দিল্লি