banglanewspaper

জন ক্যাম্পবেল মূলত ওপেনার। শখের বশে কিংবা দলের প্রয়োজনে ডানহাতি অফস্পিনটাও করে দেন মাঝেমধ্যে। তেমনি করে বোলিং করছিলেন দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে। আর সেটিই কাল হলো ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাঁহাতি এই ওপেনারের।

শুধু ক্যাম্পবেল একা নন। ঘরোয়া ক্রিকেটে দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আরেক স্থানীয় ক্রিকেটার প্যাট স্যালমনকেও শাস্তি দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। পরবর্তী ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আর বোলিং করতে পারবেন না ক্যাম্পবেল ও স্যালমন। অবৈধ বোলিং অ্যাকশনজনিত কারণে তাদের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। 

লাফবরো ইউনিভার্সিটির স্বতন্ত্র পরীক্ষাগারে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে পাস করতে পারেননি এ দুই বোলার। দেখা গেছে, দুজনের হাতই বেঁকে যায় বেঁধে দেয়া ১৫ ডিগ্রির চেয়ে বেশি। তাই অ্যাকশন শুধরানোর আগে আর বোলিং করতে পারবেন না ক্যাম্পবেল ও স্যালমন।

জ্যামাইকা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়শনের অধীনে থেকে নিজেদের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে কাজ করবেন এ দুই বোলার। পরে নতুন বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দিয়ে পাস করতে পারলেই মিলবে পুনরায় বোলিং করার অনুমতি।

গত মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্টে ত্রিনিদাদ এন্ড টোবাগোর বিপক্ষে ম্যাচে প্রশ্ন তোলা হয় ক্যাম্পবেলের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে। সে ম্যাচে ১৯ ওভার বোলিং করে ৫৪ রান খরচায় ১ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। এছাড়া পরের ম্যাচেও ৪ ওভার বোলিং করেছিলেন ক্যাম্পবেল।

অন্যদিকে ২৭ বছর বয়সী স্যালমনের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়েছে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তার অভিষেক ম্যাচেই। গায়ানার বিপক্ষে সে ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৭ রান খরচায় ৭ উইকেট নিয়েছিলেন স্যালমন, জিতেছিলেন ম্যাচসেরার পুরস্কার। কিন্তু এবার অবৈধ অ্যাকশনের কারণে পেলেন বোলিং থেকে নিষেধাজ্ঞা।
 

ট্যাগ: bdnewshour24 ওয়েস্ট ইন্ডিজ