banglanewspaper

হুমায়ূন আহমেদ পরিচালিত ‘কোথাও কেউ নেই' নাটকের অন্যতম আলোচিত চরিত্র বাকের ভাইয়ের কথা মনে আছে নিশ্চয়ই। সে সময় এই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তখনকার জনপ্রিয় অভিনেতা এবং বর্তমান সরকারের সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

নাটক এবং চরিত্র দুটোই তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকের আসাদুজ্জামান নূরের বিপরীতে ছিলেন সুবর্ণা মুস্তাফা।

এবার সেই কালজয়ী চরিত্র ‘বাকের ভাই’কে তোলা হবে রুপালি পর্দায়। এই গুরুদায়িত্বটি সামলাবেন জনপ্রিয় নির্মাতা ওয়াজেদ আলী সুমন। ছবির নামও হবে ‘বাকের ভাই’। পরিচালক নিজেই এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তবে বাকের ভাই চরিত্রে কে অভিনয় করবেন, সেটা এখনই জানাতে নারাজ ওয়াজেদ আলী সুমন। খুব শিগগিরই বড় পর্দার বাকের ভাইয়ের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

তবে পরিচালক কিছু না জানালেও এক ঘনিষ্ঠ সূত্র মারফত জানা গেছে, চলচ্চিত্রে বাকের ভাইয়ের চরিত্রটি করবেন ঢাকাই সিনেমার সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন শাকিব খান।

তবে পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমনের সাফ কথা, ‘বাকের ভাই চরিত্রের জন্য এখনো কাউকে চূড়ান্ত করা হয়নি। তাই উড়ন্ত খবরে কান দেবেন না। সবকিছু চূড়ান্ত হলে আমরাই প্রকাশ করব।’

আপাতত ছবির কাহিনী ও চিত্রনাট্যের কাজ চলছে।  নাট্যকার ও ঔপন্যাসিক মাসুম রেজা লিখছেন এর কাহিনী ও চিত্রনাট্য।  গত ২৫ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে ‘বাকের ভাই’ ছবির নামটি নিবন্ধন করা হয়েছে বলে এফডিসি সূত্রে জানা গেছে।

পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমন বলেন, ‘ভালো গল্পের একটা ছবি বানানোর জন্য অনেকদিন ধরেই পরিকল্পনা করে আসছি। যেখানে থাকবে পুরোপুরি মৌলিক একটি গল্প। এ ক্ষেত্রে বাকের ভাইকে নিয়ে চলচ্চিত্র হলে সেটা দারুণ হয়। তাই কালজয়ী এই চরিত্র নিয়েই সিনেমা বানানোর পরিকল্পনা করেছি। তবে আমরা এখনো নায়ক-নায়িকা চূড়ান্ত করিনি।’

শাকিব খানও জানালেন, তার সঙ্গে এ ছবিতে অভিনয়ের ব্যাপারে পরিচালক বা প্রযোজকের সঙ্গে কোনো কথা হয়নি। শাকিবের কথা, ‘বাকের ভাই একটি কালজয়ী চরিত্র।

আমাদের কিংবদন্তি হুমায়ূন আহমেদ সাহেবের অমর সৃষ্টি এটি। সেখানে অভিনয় করেছিলেন আরেক কিংবদন্তি অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর। এমন একটি চরিত্রে কাজ করতে পারলে আমার জন্যও গর্বের।’

ট্যাগ: bdnewshour24 নাটক বাকের ভাই চলচ্চিত্র