banglanewspaper

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে এলো ভাষার মাস ফেব্রুয়ারি। সেই সঙ্গে বিদায়-বিরহের সুর প্রাণের মেলা বইমেলায়।

সোহরাওয়ার্দী ময়দানে কিংবা বাংলা একাডেমির চত্বরজুড়ে রবিবার থেকে জ্বলে উঠবে না সারি সারি বইয়ের কুটির। আজ শনিবারই দিন শেষে পর্দা নামছে এবারের আসরের।

এবারের বইমেলা একটা তৃপ্তি নিয়েই শেষ হচ্ছে বলা যায়। অন্যবারের চেয়ে এবারের বইমেলার আয়োজনে ছিল বৈচিত্র্য-ভরা। সুপরিসর,  নান্দনিক এবং গোছানো। বড় পরিসরে স্টল ও প্যাভেলিয়ন সাজানো হয়েছিল সোহরাওয়ার্দী ও একাডেমি চত্বর।

ফলে মেলায় আসা ক্রেতা-দর্শনার্থীরা স্বাচ্ছন্দ্যে ঘুরেফিরে বই কিনেছেন। উপভোগ করেছেন মেলা। কবি-সাহিত্যিকরা মেতেছিলেন সাহিত্য আড্ডায়।

গতকাল ছিল বইমেলার শেষ শুক্রবার। মেলা শুরু হয়েছিল বেলা ১১টায়। দুপুর একটা পর্যন্ত ছিল শিশুপ্রহর। এই সময়টাতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিশুচত্বরে হালুম, ইকরি আর শিকুদের দেখতে শিশু-কিশোরদের উচ্ছ্বাসের জোয়ার লেগেছিল।

দুপুর একটা থেকে তিনটা পর্যন্ত মেলায় লোকসমাগম কিছুটা কম ছিল। জুমার নামাজ ও মধ্যাহ্নভোজে ব্যস্ত ছিলেন বইয়ের ক্রেতারা। 

ট্যাগ: bdnewshour