banglanewspaper

আগের ম্যাচে ভারতের সাথে জিততে জিততে হেরে গিয়ে মনোবল চুরমার হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সেই ভাঙ্গা মন নিয়েই ঘুরে দাড়ানোর প্রত্যয়ে নিজেদের শেষ ম্যাচে জয়ের প্রত্যাশায় মাঠে নেমেছিল টাইগাররা। কিন্তু তেমনটা আর হলো না। 

উল্টো শনিবার ইডেন গার্ডেনসে হতাশার সঙ্গে বাংলাদেশের সঙ্গী হলো এক লজ্জাজনক হারও। নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ১৪৬ রানের জবাবে ৭৫ রানে হেরেছে মাশরাফিবাহিনী। ফলে সুপার টেন পর্বে জয়ের স্বাদ না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়েই এবারের বিশ্বকাপ মিশন শেষ হলো বাংলাদেশের।

ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। সেই রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ৭০ রানেই অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। তখনো ইনিংসের বাকি ছিল ৪.২ ওভার (২৬ বল)।

এর আগে টি২০ ক্রিকেটে কখনোই ৫০ রানের মধ্যে ৭ উইকেট হারানোর রেকর্ড ছিল না বাংলাদেশের। শনিবার ইডেন গার্ডেনসে তেমনটাই ঘটেছে। দলীয় ৪৮ রানেই ৭ উইকেট হারিয়েছে মাশরাফিবাহিনী। আন্তর্জাতিক টি২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশের এটা (৭০ রান) সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহের রেকর্ড। 

আগের রেকর্ডটি ছিল ৭৮ রানের। ২০১০ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই হেমিল্টনে সেই লজ্জা সঙ্গী হয়েছিল বাংলাদেশের। শনিবার লজ্জার মাত্রাটা বেড়েছে। প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের ৭০ রানের রেকর্ডটি টি২০ ক্রিকেটে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে যে কোনো দলের সর্বনিম্ন দলীয় সংগ্রহের রেকর্ডও।

কিন্তু বাংলাদেশের হয়ে এদিন বল হাতে ঝলকানি দেখিয়েছিলেন ‘কাটার মাস্টার’ খ্যাত তরুণ পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। ম্যাচে ৪ ওভার বোলিং করে ২২ রান খরচায় ৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। এরি সাথে এবারের আসরে টপ উইকেট টেকার হিসেবে নিজের নাম টাও উপরে নিয়ে গেছেন এই তরুণ বোলার।

আজকের ম্যাচের আগে অস্ট্রেলিয়ান বোলার জেমস ফকনার ছিলেন সবার উপরে। গতকালকের ম্যাচে ২৬ রান দিয়া ৫ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। তবে শেষ বলে ৬ না খেলে হয়তো মুস্তাফিজুর এর নাম এর পাশে ১৬ রান এ ৫ উইকেট লেখা থাকতো। এরি সাথে মোস্তাফিজ আরো এক কীর্তি গড়েছেন! তার ৫ উইকেটের ৪ টিই ছিল বোল্ড আউট। 

বাংলাদেশের হয়ে অপর তিনটি উইকেট ভাগাভাগি করেছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ও পেসার আল-আমিন হোসেন। মাশরাফি নিয়েছেন ১ উইকেট, আল-আমিনের ভাগে পড়েছে ২টি। 

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪২ রান করেছেন অধিনায়ক ও ওপেনার কেইন উইলিয়ামসন। এ ছাড়া কলিন মুনরো ৩৫ ও রস টেলর ২৮ রান করেছেন।

বিশ্বকাপে সুপার টেন পর্ব মাশরাফি বাহিনী ভালো খেলার আশা দেখালেও সবদিক থেকে যথাযথভাবে সফলতা অর্জন করতে পারেনি। আর তাই ভারতের সাথে মাত্র ১ রানের পরাজয়, অস্ট্রেলিয়ার সাথে ৩ উইকেটের পরাজয়্ অনেকটাই অসামঞ্জস্যতার প্রতিফলন। 

ট্যাগ: